1. admin@dailyamarpranerhabiganj.com : admin :
শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৯:০৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ই-প্রেস নিউজের উপজেলা প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন সাংবাদিক মোঃ সোহাগ মিয়া। মাধবপুরে রাতের বেলা কোম্পানী থেকে কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে ডাকাতের কবলে আহত ১। মাধবপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় অজ্ঞাতনামা এক ব্যাক্তি নিহত। আহত ১ মাধবপুরে ১ কেজি গাঁজাসহ এক বৃদ্ধকে আটক করেছে জনতা। বাহুবলে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে অজ্ঞাতনামা গাড়ীর চাপায় এক সিএনজি চালক নিহত। টিম মাধবপুর থানার বিশেষ অভিযানে চোরাই মোবাইল ও ল্যাপটসহ গ্রেফতার ০১ শাহজীবাজার বিদ্যুৎ কেন্দ্রে বিদ্যুৎ ফ্ল্যাসিং হয়ে ১জন আহত। হবিগঞ্জ সদর মডেল থানার বিশেষ অভিযানে ০১(এক)কেজি গাঁজাসহ ০১ জন মাদক ব্যবসায়ী আটক। গোসাই পুর এলাকার মুক্তার মিয়ার গরুর খামারের পাশে বনের খড়ে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড। পুলিশ- সাংবাদিক- জনপ্রতিনিধি তিন সয়াহয়তায় স্বজনরা ফিরে পেলেন হারিয়ে যাওয়া বৃদ্ধাকে।

শীতে কদর বেড়েছে মুখরোচক ভাপা পিঠার।

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৬৯ বার পঠিত

 

মোঃ আল আমিন শায়েস্তাগঞ্জঃ

শীতে কদর বেড়েছে মুখরোচক ভাপা পিঠার,
আবহমান গ্রাম বাংলায় শীতের পিঠা গ্রামীণ ঐতিহ্য। শীত মানেই পিঠা-পুলির ঘ্রাণ। কুয়াশা মোড়ানো শীতের হিমেল হাওয়ায় ধোঁয়া উঠা ভাপা পিঠার স্বাদ না নিলে যেন তৃপ্তি মেটেনা অনেকের। শীত মৌসুমে গ্রামীণ বধূরা রকমারী পিঠা তৈরি করেন। শীতের পিঠার মধ্যে ভাপা পিঠা একটি অন্যতম পিঠা। ভাপা পিঠা আবার হরেক রকম পদ্ধতিতে তৈরি করা হয়। কখনো মিষ্টি ভাপা, কখনো ঝাল ভাপা। শীত এলেই যেন হরেক রকম সুস্বাদু পিঠার বাহারি আয়োজন।
শীত এলেই শহর ও গ্রামীণ হাটবাজারে নানা রকম পিঠা বিক্রি করা হয়। বিশেষ করে ভাপা পিঠা, তেলের পিঠা ও চিতই পিঠা। শীত বাড়ার সাথে সাথে শহরের ফুটপাতে শীতের পিঠার ব্যবসা জমে উঠেছে। চুলার অল্প আঁচের ধোঁয়া উড়ছে। গরম গরম ভাপা, চিতই নামছে। ক্রেতারা এসে সারিবদ্ধ হয়ে পিঠা কিনছেন।
হবিগঞ্জ জেলার, শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় ও চুনারুঘাট উপজেলার, চুনারুঘাট বাজার,শাকির মোহাম্মদ, ডেওয়াতলী, শানখলা, বদরগাজী, বরমপুর বাজার সহ বিভিন্ন স্থানে ছোট ছোট পিঠার দোকান সাজিয়ে বসছে নারী-পুরুষ বিক্রেতারা। অনেকেই এই শীতের মৌসুমে পিঠা বিক্রিকে বেছে নিয়েছেন মৌসুমী পেশা হিসেবে। বেচাকেনাও বেশ ভালোই চলছে। চলতি পথে থেমে বা অস্থায়ী দোকানের বেঞ্চে বসেই সন্ধ্যায় হালকা নাশ্তাটা সেরে নিচ্ছেন গরম গরম ভাপা পিঠা কিংবা চিতই (সাঝের পিঠা) পিঠা দিয়ে। কেউবা চিতই পিঠার সাথে নিচ্ছেন খেজুরের গুড়, কেউবা আক’য়ের গুড়, কেউবা ঝালযুক্ত সরিষা বাটা। প্রতিটি ভাপা পিঠা বিক্রি হচ্ছে ৫ টাকা এবং চিতই ৫ টাকায়। সাথে খেজুরের গুড় আক’য়ের গুড় সরিষা বাটা থাকছে ফ্রি।

বেশির ভাগ বিক্রেতাই ভাপা পিঠা বিক্রি করছেন। তবে চিতইও কম চলছে না। কোথাও কোথাও থাকছে নারিকেল পিঠা। অনেক রেস্টুরেন্ট এখন বাহারী পিঠার পসরা সাজিয়ে খদ্দেরকে আকৃষ্ট করছে। রেস্টুরেন্টভেদে মিলছে ভাপা পিঠা, খেজুর রসের পিঠা, শাহি ভাপা পিঠা, দুধ চিতই, রসের পিঠা, ডিম চিতই, সিদ্ধ কুলি পিঠা, ভাজা কুলি পিঠা, ঝাল কুলি, ছানার পুলি, নারিকেলের পিঠা, তিলের পিঠা , ক্ষীরে ভরা পাটি সাপটা, চিংড়ি মাছের নোনতা পাটিসাপটা পিঠাসহ নানা পিঠা।
শায়েস্তাগঞ্জ বাজারের পিঠা বিক্রেতা আশিক মিয়া জানান, শীতের পিঠা অনেক ভালো চলে। ভাপা ০৫ টাকা, চিতই ২ পিস ১০ টাকায় বিক্রি করেন তিনি। যুবক-যুবতী-মুরব্বি সব বয়সের লোকই আসেন তার দোকানে পিঠা খেতে। অনেকে বাসায় নিয়ে যান।

পিঠা কিনতে আসা আব্দুর রহিম সবুজ বলেন, আমি প্রতিদিনই সন্ধ্যার পর এই দোকান থেকে পিঠা খাই। শীত কালের খাবার মধ্যে পিঠা অন্যতম। আগে যদিও বাড়িতে এসব পিঠা বানানোর হিড়িক পড়তো এখন তা আর দেখা যায় না।
সারিবদ্ধ বসে পিঠা খাচ্ছেন অনেকেই। তাঁদের মধ্যে এক ব্যক্তি শেখ মাহফুজ বলেন, আমি আর আমাদের কলেজ জীবনের কিছু ছোট ভাইদেরকে নিয়ে আজ সন্ধ্যায় পিঠা আড্ডায় মিলেছি।
গ্রামের মানুষ নবান্নের আনন্দে যেভাবে শীতকে বরণ করে নিচ্ছে – হোক তা ঘরে কিংবা বাইরে, বাহারি পিঠার স্বাদে শীতকে বরণ করে নিচ্ছে এখন। শীতের মৌসুমি পিঠার স্বাদ এখন চাইলেই পাওয়া যায় জীবনে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর
© All rights reserved © 2022 Daily Amar Praner Habiganj
Theme Customized By Shakil IT Park